কম্পিউটার থেকে চোখ বাঁচাবেন যেভাবে

Nayem Nayem

Rahman

প্রকাশিত: ৫:১৩ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১১, ২০২০
শেয়ার করুনঃ

যুগের সাথে তাল মিলিয়ে আজ আমরা আধুনিক যুগে এসে দাঁড়িয়ে আছি। আর সেই আধুনিকতাকে আরো সহজ করে দিয়েছে মোবাইল ও কম্পিউটারের ব্যবহার। আজ আমরা যেখানে খুশি, যতক্ষণ খুশি ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারছি এই মোবাইল ও কম্পিউটার এর দৌরাত্ম্যে।

প্রযুক্তি নির্ভর এ সময়ে দিনের অনেকটা সময় কাটে কম্পিউটারের সামনে। যেহেতু কম্পিউটার ছাড়া কাজের কথা বর্তমান সময়ে ভাবা যায় না কাজেই থাকতে হচ্ছে এগুলো নিয়েই। এতে কাজের অগ্রগতির সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে চোখের সমস্যাও। তাই আমাদের জানা উচিত কম্পিউটার স্ক্রিন কিভাবে রাখা উচিত যা আমাদের চোখের ক্ষতি না করতে পারে।

নিরাপদ দূরত্ব বজায়

কম্পিউটার স্ক্রিন থেকে মোটামুটি ২৫ থেকে ২৬ ইঞ্চি-বা কমপক্ষে এক হাত পরিমাণ দূরত্বে চোখ রাখুন। কাজ করার সময় স্ক্রিন যেন চোখের ঠিক সমান জায়গায় থাকে। স্ক্রিনের রং (কালারকন্ট্রাস্ট) এবং আলো মাঝামাঝি রাখুন, যাতে খুব অন্ধকার বা খুব বেশি আলো না হয়।

খুব ছোট ফন্ট নয়

পিসির স্ক্রিনে পড়ার জন্য খুব ছোট ফন্ট ব্যবহার করবেন না। বরং চোখের জন্য পিসিতে ও ব্রাউজারে আরামদায়ক ফন্ট নির্বাচন বা সেটিং করুন। পাশাপাশি সেলফোনের স্ক্রিন যেন ছোট না হয়, সে দিকেও নজর রাখতে হবে।

নিয়মিত চোখের পলক ফেলা

কম্পিউটার স্ক্রিনের কারণে আমরা চোখের পলক ফেলতে ভুলে যাই। কম্পিউটারে কাজের সময় নিয়মিত বিরতিতে চোখের পলক ফেললে চোখে ময়েশ্চার তৈরি হয় যা চোখের শুষ্কতা দূর করে।

কম্পিউটার গ্লাস

চোখ বাঁচাতে ট্রাই করা যেতে পারে আরও একটি পদ্ধতি। তা হল কম্পিউটার গ্লাস ব্যবহার করা। এটি চোখের স্বার্থে ও দীর্ঘ সময় কম্পিউটার ব্যবহারকে কিছুটা আরামদায়ক বানাতে তৈরি হয়েছে। এই কাঁচের ব্যবহার করেও চোখ রক্ষার চেষ্টা করা যেতে পারে।

চশমা

অনেকেই অ্যান্টি রিফলেক্টিং কোটিং-এর কথা শুনেছেন। চশমার লেন্সে এই কোটিং ব্যবহার করা যেতে পারে। এটিও চোখকে সুরক্ষিত করে।

২০-২০-২০ নিয়ম

চোখ সুরক্ষার জন্য একটি নিয়ম হচ্ছে ২০-২০-২০। এতে প্রতি ২০ মিনিট পর পর, ২০ ফুট দূরত্বের কোনো জিনিসের দিকে ২০ সেকেন্ড তাকিয়ে থাকতে হয়। কম্পিউটার স্ক্রিনের দিকে এক নাগাড়ে তাকিয়ে থাকা ক্লান্ত চোখ বা কোনো কাজ করার সময় দৃষ্টি সরানোর সুযোগ না পেলে এই নিয়ম মেনে চলা উচিত।