টিকা আবিষ্কার করে আধিপত্য বিস্তার করবে চীন, বিশেষজ্ঞদের শঙ্কা

Nayem Nayem

Rahman

প্রকাশিত: ১১:৪১ পূর্বাহ্ণ, মে ৪, ২০২০
শেয়ার করুনঃ

বিশ্বের অন্যান্য দেশের তুলনায় চীন ও যুক্তরাষ্ট্র করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন তৈরির দৌড়ে এগিয়ে আছে। বিশেষজ্ঞদের শঙ্কা- টিকা আবিষ্কার করতে পারলেই দেশ দু’টি অর্থনৈতিক তো বটেই কূটনৈতিকভাবেও তার ফায়দা আদায় করে নেওয়ার চেষ্টা করবে।

ডেইলি মেইলের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ব্রিটেনের জাতীয় নিরাপত্তা বিষয়ক একজন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেছেন- দেশ দু’টি জানে যে দেশই করোনাভাইরাসের টিকা প্রথমে আবিষ্কার করতে পারবে, সে দেশই বিশ্বে ছড়ি ঘোরাবে।

তবে চিকিৎসক থেকে শুরু করে বিজ্ঞানিরা মনে করছেন, এই দৌড়ে যুক্তরাষ্ট্রের চেয়ে চীন অনেকটাই এগিয়ে। কারণ হিসেবে তারা উল্লেখ করছেন, চীনই প্রথম করোনাভাইরাস জানতে শুরু করেছে। সে দেশে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে সবার আগে এবং তারা এটি নিয়ন্ত্রণেও নিয়ে এসেছে।

এখন পর্যন্ত চীনে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছে ৮২ হাজার আটশ ৮০ জন এবং মারা গেছে চার হাজার ছয়শ ৩৩ জন। তবে এরই মধ্যে সুস্থ হয়েছে ৭৭ হাজার সাতশ ৭৬ জন এবং চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা  ৪৮১ জন।

অন্যদিকে যুক্তরাষ্ট্রে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছে ১১ লাখ ৮৮ হাজার একশ ২২ জন এবং মারা গেছে ৬৮ হাজার পাঁচশ ৯৮ জন। সেরে উঠেছে মাত্র এক লাখ ৭৮ হাজার ২৬৩ জন।

পেন্টাগন ও সিআইএ’র সাবেক কর্মকর্তা ম্যাট ক্রয়েনিগ বলেছেন, চীন কোনো ধরনের সহায়তা দিলেও বিভিন্ন সময় তার পেছনে শর্ত থাকে।  সে কারণে তারা টিকা আবিষ্কার করলেও তাদের প্রভাব বাড়ানোর কাজে ব্যবহার করতে পারে এবং যুক্তরাষ্ট্রকে চাপে ফেলার চেষ্টা চালাতে পারে।

তিনি আরো বলেন, চীন নিজেদের হারানো গৌরব ফিরে পাওয়ার জন্য মোক্ষম অস্ত্র হিসেবে করোনাভাইরাসের টিকা ব্যবহারের জোর চেষ্টা চালাতে পারে। করোনার কারণে তারা যে ধরনের বিপাকে পড়েছে, তা উত্তোরণের জন্য সহায়ক হতে পারে এই ভাইরাসেরই টিকা।